আজ

  • শুক্রবার
  • ২রা অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পত্রিকা অফিসে ভাঙচুর: হবিগঞ্জে যুবলীগ সভাপতি কারাগারে

আপডেট : অক্টোবর, ২৪, ২০১৮, ৫:৪১ পূর্বাহ্ণ


স্টাফ রিপোর্টার>>>ওমর আলম

হবিগঞ্জে স্থানীয় একটি পত্রিকা অফিসে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের মামলায় জেলা যুবলীগ সভাপতি আতাউর রহমান সেলিমকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলামের আদালতে হাজির হয়ে জামিন চাইলে আদালত তাকে কারাগারে প্রেরণ করেন। এর আগে ওই মামলায় আদালত তাকে ৩ বছরের কারাদণ্ড দেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র জি কে গউছের মালিকানাধীন স্থানীয় দৈনিক আজকের হবিগঞ্জ পত্রিকা কার্যালয়ে ২০০৬ সালের ২৮ অক্টোবর হামলা ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ হয়। এ ঘটনায় ওই পত্রিকা অফিসের তৎকালীন মেশিন অপারেটর ও কেয়ারটেকার মিজানুর রহমান বাদী হয়ে ২০০৭ সালের ১০ এপ্রিল ৭ জনের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার আসামিরা হচ্ছেন যুবলীগ সভাপতি আতাউর রহমান সেলিম, যুবলীগ নেতা হাসান চৌধুরী হেমসিন, তালুকদার শাহীন, আবুল কাশেম চৌধুরী, মহিবুর রহমান মামুন, জাহির মিয়া ও ফয়ছল মোল্লা।

তদন্ত শেষে ৭ জনের বিরুদ্ধে ১৮ এপিল আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। একই বছরের ১৪ আগস্ট সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত উক্ত মামলায় যুবলীগ সভাপতি আতাউর রহমান সেলিম, যুবলীগ নেতা হাসান চৌধুরী হেমসিন ও তালুকদার শাহীনকে আদালত ৩ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দেন। একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ৩ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন। বাকি আসামিদের খালাস দেয়া হয়।

পরবর্তীতে দণ্ডপ্রাপ্তরা অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতে আপিল করেন। শুনানি শেষে ২০১৬ সালের ২২ মার্চ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত তাদের সাজা বহাল রাখেন।
ইতিমধ্যে আদালত থেকে জামিন নিয়েছে হাসান চৌধুরী হেমসিন ও তালুকদার শাহীন। মঙ্গলবার যুবলীগ সভাপতি আতাউর রহমান সেলিম আদালতে হাজির হয়ে আপিলের শর্তে জামিন চাইলে বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরণ করেন।