আজ

  • বৃহস্পতিবার
  • ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ছাগলনাইয়ার বালুমহাল দখলকে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যান মানিক দু’গ্রুপের গোলাগুলি সিরাজ নিহত,আহত-৫

আপডেট : ডিসেম্বর, ৮, ২০১৯, ১০:১০ অপরাহ্ণ

স্টাফ রিপোর্টে>>>ওমর আলম
ছাগলনাইয়া উপজেলার ঘোপাল ইউনিয়নে বালু মহাল ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দু’গ্রপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে সিরাজুল ইসলাম সিরাজ (২৫) নামে এক প্রবাসী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় গুরুত্বর আহত ৩ জনসহ মোট ৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে গুলিবিদ্ব জোবায়ের হোসেন পারভেজসহ তিনজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও দুজনকে ছাগলনাইয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

জুলফিকার সিদ্দিকের পক্ষের লোক জন হত্যার সাথে জড়িত মানিক চেয়ারম্যানসহ অপরাপর আসামীদের গ্রেফতারের দাবীতে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়ক দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়। ফেনীর ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার রবিউল হক গিয়ে যানজট নিরসন করে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান,অবৈধ বালু মহাল ও পরস্পর আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাগলনাইয়া উপজেলা আআওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক জুলফিকার সিদ্দিক ও ঘোপাল ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারন সম্পাদক ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আজিজুল হক মানিকের মাঝে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিলো। এ বিরোধের জের ধরে ৮ ডিসেম্বর রোববার বিকেল ৪ টা থেকে বালু মহাল দখল ও পাল্টা দখলের প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে ঘোপাল ইউনিয়নের সমিতি বাজার এলাকায় মানিক ও জুলফিকার গ্রুপের মধ্যে ১ ঘন্টার ও বেশী সময় সংঘর্ষ ও গোলা গুলির ঘটনা ঘটে।

ছাগলনাইয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মেজবাহ উদ্দিন জানান, সংঘর্ষের খবর জানতে পেরে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। নিহত সিরাজের লাশ ময়না তদন্তের জন্য ফেনী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত ও বিষয়টি তদন্তের চেষ্টা চলছে। আজিজুল হক মানিক ও ফোন বন্ধ পাওয়ায় তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি, কিন্তু জুলফিকার সিদ্দিক বলেন,মানিক চেয়ারম্যান এলাকায় আধিপত্য বিস্তার করতে এ হত্যা কান্ড সংগঠিত করে এবং দলিয় লোকজনের উপর হামলা চালায়। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতিও চলছে বলে পুলিশ জানান।