আজ

  • শুক্রবার
  • ২রা অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পবিএ মাহে রমজানের শুভেচ্ছা>সম্পাদক, সত্যের সন্ধানেে ২৪

আপডেট : এপ্রিল, ২৪, ২০২০, ৩:০৪ অপরাহ্ণ

পবিএ মাহে রমজানের প্রাণঢালা শুভেচ্ছা

আসসালামু আলাইকুম। অনলাইন নিউজ পোর্টাল “সত্যের সন্ধানেে ২৪ (sattersandhane24.com) ” প্রকাশক ও সম্পাদক সালাহ উদ্দিন মজুমদার এর
পক্ষ থেকে প্রতিষ্ঠানটির সংবাদকর্মী, পাঠক, বিজ্ঞাপনদাতাসহ ফেনীসহ পুরোদেশবাসী সবাইকে পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। বছরের ১২ টি মাসের মধ্যে সর্বোত্তম মাস হচ্ছে এই রমজান মাস। এ মাসের আমল আল্লাহর কাছে অধিক প্রিয়। তাই আসুন আমরা সবাই রমজানের ফরজ রোজা পালন করি।
আজ শুক্রবার ইংরেজি ২০২০ সালের ২৪ এপ্রিল, আরবী ১৪৪১ হিজরী সনের ২৯ শাবান। আজ বিকালে চাঁদ দেখা গেলে আগামীকাল শনিবার থেকে শুরু হবে পবিত্র মাহে রমজান মাস।

মহান রাব্বুল আলামীন রমজানের মাসব্যাপী রোজাকে ফরজ করেছেন। সুবেহ সাদিক থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত পানাহার এবং ইন্দ্রীয় সুখ ভোগ থেকে বিরত থাকার নামই রোজা। যে পাঁচটি স্তম্ভের ওপর ইসলাম দণ্ডায়মান তার একটি রোজা। নামাজের পরই রোজার স্থান। মাহে রমজান রহমত-বরকত, মাগফিরাত ও নাজাতের মাস। মানুষের দৈহিক, মানসিক, আত্মিক, নৈতিক ও আধ্যাত্মিক উন্নয়নে এ মাসের রোজা অত্যন্ত ফলপ্রসূ। সংযম, সহিষ্ণুতা ও আত্মশুদ্ধির অনন্য চেতনায় ভাস্বর মাহে রমজান।

মহানবী সাঃ এ মাসকে এক সুমহান মাস হিসেবে অভিহিত করেছেন। এ মাসের প্রথম ১০ দিন রহমত, মধ্য ১০ দিন মাগফিরাত এবং শেষ দিনগুলো জাহান্নাম থেকে মুক্তির। অন্যান্য মাস অপেক্ষা রমজান মাসের শ্রেষ্ঠত্বের বড় কারণ এই যে, এ মাসেই বিশ্ব মানবতার মুক্তি সনদ পবিত্র আল কোরআন নাজিল হয়। পবিত্র কোরআনে আল্লাহপাক বলেছেন, ‘রমজান সেই মাস যে মাসে কোরআন নাজিল হয়েছে। কোরআন, যা মানুষের হেদায়াত, সত্যের পথযাত্রীদের জন্য সুস্পষ্ট পথ নির্দেশক আর ন্যায়-অন্যায়ের মধ্যে পার্থক্য বিধানকারী। কাজেই তোমাদের মধ্যে যে কেউ এ মাসটি পাবে, সে এ মাসের রোজা রাখবে।’

এ মাসেই এমন একটি রাত রয়েছে যাকে বলা হয় লাইলাতুল কদর বা সৌভাগ্য রজনী। আল্লাহপাক এ সম্পর্কে বলেছেন, ‘আমরা এটি (আল কোরআন) কদরের রাতে নাজিল করেছি। তুমি কি জান, কদরের রাত কি? কদরের রাত হাজার মাস অপেক্ষাও অধিক উত্তম’। রাসুলুল্লাহ সা. বলেছেন, ‘যখন রমজান শুরু হয়, দোজখের দরজা বন্ধ করে দেয়া হয় এবং শয়তানকে শৃঙ্খলাবদ্ধ করা হয় এবং জান্নাতের দরজা খুলে দেয়া হয়।’ পবিত্র কোরআন ও হাদিসের আলোকে পবিত্র রমজান মাস, রমজান মাসের রোজা ও অন্যান্য ইবাদত কতটা মর্যাদা ও গুরুত্বপূর্ণ তা সহজেই উপলব্ধি করা যায়। তাই আসুন আমরা সবাই রমজান মাসের ত্রিশটি রোজা আল্লাহর হুকুম মেনে পালনের চেষ্টা করি।

রহমতের এই মাসে বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস মহামারী রোধ করার জন্য আমাদের আল্লাহর কাছে পানাহ চাইতে হবে। যাতে আর কোন মানুষের জীবনহানি না হয়। এ রোগে আর কেউ যেন আক্রান্ত না হয়। অসুস্থ করোনা রোগীদের দ্রুত সুস্থতার জন্য আমরা রোজা রেখে আল্লাহর কাছে মোনাজাত করি ।

মাহে রমজান প্রতিটি মুসলমানের জীবনে বয়ে আনুক শান্তি-সুখের বার্তা, সবার জীবন হয়ে উঠুক মঙ্গলময়, মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের দরবারে আমরা এই প্রার্থনা জানাই।

সবাই সুস্থ থাকুন, ভাল থাকুন
প্রকাশক ও সম্পাদক
সালাহউদ্দিন মজুমদার
সত্যের সন্ধানেে ২৪
(sattersandhane24.com)