আজ

  • বুধবার
  • ৮ই জুলাই, ২০২০ ইং
  • ২৪শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ফেনীতে মাদ্রাসা শিক্ষককে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরকে আটক করেছে র‌্যাব-৭।

আপডেট : জুন, ১৭, ২০২০, ১:৪৫ অপরাহ্ণ

সালাহ উদ্দিন মজুমদার>>>>
ফেনীতে ছাত্রের বকেয়া বেতন চাওয়ায় মাদরাসা শিক্ষক মামুনুরর রশিদকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় অভিযুক্ত পিতা জাহাঙ্গীরকে আটক করেছে র‌্যাব-৭।

র‌্যাব জানায়, মঙ্গলবার রাত ৯ টার দিকে জাহাঙ্গীরকে শহরের মাস্টারপড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।
জাহাঙ্গীর নিজেকে যুবলীগের নেতা পরিচয় দেয় বলে দাবী স্থানীয়দের। ঘটনার পর থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ দিলেও অজ্ঞাত কারণে ধরাছোঁয়ার বাইরে ছিল সে। অন্যদিকে ভুক্তভোগী শিক্ষককে চাপ প্রয়োগ করে বিষয়টি আপোষ হয়েছেবলে এক সাথে ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারে বাধ্য করেছিল জাহাঙ্গীর।

অবশেষে মঙ্গলবার রাতে তাকে আটক করা হয়। আজ বুধবার সকালে জাহাঙ্গীরকে ফেনী র‌্যাব অফিস থেকে ফেনী মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়।

এর আগে অভিভাবকের কাছে বকেয়া বেতন চাওয়ায় পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডে দারুল ঈমান ইসলামী মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও স্থানীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মামুনুর রশীদকে রবিবার বিকালে ধারালো ছুরি দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করা হয়। একটি সিসি ক্যামেরার ফুটেজে ধারণ হওয়া চিত্র গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে তোলপাড় শুরু হয়।জাহাঙ্গীর আলম ফেনী শহরের পূর্ব উকিল পাড়ার মুন্সি পুকুরের পূর্ব পাশের আবুল বশরের ছেলে।