আজ

  • শুক্রবার
  • ১৪ই আগস্ট, ২০২০ ইং
  • ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ফেনীর রয়েল এবং জেনারেল হাসপাতালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের অভিযান

আপডেট : জুলাই, ২৭, ২০২০, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ণ

সালাহ উদ্দিন মজুমদার>>>>

ফেনীতে রোববার (২৬ জুলাই) দুইটি বেসরকারি হাসপাতালকে নানা অনিয়ম, অননুমোদিত বেড স্থাপন, প্যাথলজি ল্যাবের অব্যবস্থাপনা এবং চিকিৎসকদের অননুমোদিত ডিগ্রি ব্যবহারের অপরাধে মোবাইলে কোর্টে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। মোবাইল কোর্টে নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এন. এম. আবদুল্লাহ আল মামুন।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্র জানায়, ফেনী শহরের দাউদপুল এলাকায় ফেনী রয়েল হাসপাতালে অনুমোদিত প্যাথলজিস্ট না থাকা, নমুনা পরীক্ষার কোন কাগজপত্র সংরক্ষণ না করা, ব্রেস্ট ফিডিং কর্নারকে ফ্লু কর্নার বলে চালিয়ে দেওয়া, অপরেশন থিয়েটারের বেহাল অবস্থা,  ১০ বেডের অনুমতি নিয়ে ২৫ বেড চালু করা,  তিন জন ডাক্তারের বিপরীতে এক জন ডাক্তার, ৬ জন ডিপ্লোমা নার্সের পরিবর্তে মাত্র ১ জন নার্স, সঠিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনা না থাকায় রয়েল হাসপাতালকে এক লাখ টাকা জরিমানা প্রদানের আদেশ দেয়া হয়। এবং অননুমোদিত বেডের কক্ষসমূহ সিলগালা করে বন্ধ করে দেওয়া হয়।

অপরদিকে একই এলাকায় ফেনী জেনারেল হাসপাতালে ১০ বেডের অনুমোদন নিয়ে ১৩ বেড চালানো, ৩ জন ডাক্তারের বিপরীতে ২ জন, ৬ জন ডিপ্লোমা নার্সের বিপরীতে মাত্র ১ জন নার্স, অপারেশন থিয়েটার, পোস্ট অপারেটিভ রুম ও  প্যাথলজি ল্যাবের অব্যবস্থাপনা, ডাক্তারদের অননুমোদিত ডিগ্রি ব্যবহারের অপরাধে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা প্রদানের আদেশ দেয়া হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ফেনী সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার সেলিম চিশতিয়া ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

মোবাইল কোর্টের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এন. এম. আবদুল্লাহ আল মামুন রয়েল হাসপাতালের কাছ থেকে এক লাখ টাকা ও  ফেনী জেনারেল হাসপাতালের কাছ থেকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা আদায়ের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি সত্যের সন্ধানে২৪ কে বলেন এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।